নিজস্ব সংবাদদাতা : আর মাত্র দুুই দিন পরেই পবিত্র ঈদুল আজহা। মুুুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীও উৎসব কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে ব্যস্ত উপজেলার বিভিন্ন কামারপট্টির কারিগররা। সরজমিনে রোববার (১৮ জুলাই) উপজেলার গোবিন্দাসী হাটে গিয়ে দেখা যায়, পশুর চামড়া ছাড়ানো ছুরি ১০০ থেকে ২৫০, দা ২০০ থেকে ৪০০ টাকা, বটি ২৫০ থেকে ৫০০, পশু জবাইয়ের ছুরি ৪০০ থেকে ১ হাজার ২'শ টাকা, চাপাতি ৪০০ থেকে ৮০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

হাটে আসা কামাররা জানান, প্রতি বছরই কোরবানির ঈদের জন্য আমরা অপেক্ষায় থাকি। সারাবছর তেমন কাজ না থাকলেও ঈদুল আজহা আসলে আমরা অনেক ব্যস্ত হয়ে পরি। তবে মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে হাট বাজারে ক্রেতার সংখ্যা অনেকটাই কম। আশা রাখি সামনের দুই দিন বেচা কেনা ভালো হবে। সামনের দিনগুলোতে বিক্রি ভালো হলে কিছুটা লাভের মুখ দেখতে পাবো।

কোরবানির পশু জবাইরের জন্য হাটে ছুরি, চাপাতি, বটি কিনতে আসা ক্রেতারা বলেন, অন্যান্য সময়ের তুলনায় কোরবানি ঈদ উপলক্ষে দা, বটি, ছুরি, চাপাতির দাম একটু বেশি। অনেকে আবার তাদের পুরনো চাপাতি, দা, বটি, ছুরি সহ বিভিন্ন সরঞ্জাম ব্যবহার উপযোগী করতে কামার শালায় দিয়ে আসছেন।