নিজস্ব সংবাদদাতা : করোনা পরিস্থিতিতে কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ মাঠে এবারও হচ্ছে না ঈদুল আজহার নামাজ। তবে সকাল সাড়ে ৭টা, সোয়া ৮টা ও ৯টায় শহরের ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদে ঈদের তিনটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া শহরের শহীদী মসজিদসহ জেলার বিভিন্ন মসজিদে দুই থেকে তিনটি করে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে জেলা ইসলামী ফাউন্ডেশন সূত্রে জানা গেছে, জেলার ১৩টি উপজেলায় এবার ৬ হাজার ৬৩৮টি মসজিদে এবারের ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

জেলা ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মো. মহসিন খান জানান, প্রশাসনের পক্ষ থেকে মসজিদগুলোতেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে একাধিক জামাত অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। গ্রামাঞ্চলে মসজিদের পাশাপাশি ফাঁকা মাঠে সামাজিক দূরত্ব মেনে ঈদের নামাজ পড়া যাবে বলেও।

কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম জানান, ঈদের নামাজে শোলাকিয়া ঈদগাহে লাখো মুসল্লির সমাগম হয়। তাই করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা কথা বিবেচনা করে মাঠে জামাত না করার সিদ্ধান্ত নেয় কমিটি।