টাঙ্গাইল সংবাদদাতা : টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে কাজ করার সময় বালুর স্তূপের নিচে চাপা পড়ে রাশেদুল ইসলাম (২৫) নামের খননযন্ত্রের (ভেকু) মালিকের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আরও তিনজন আহত হয়েছেন।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) দিনগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে নিকরাইল ইউনিয়নের সারপলশিয়া এলাকার ভাবীর বালুর ঘাটে এ ঘটনা ঘটে। নিহত রাশেদুল উপজেলার পলশিয়া গ্রামের ইসমাইল হোসেনের ছেলে। স্থানীয় ইউপি সদস্য নুহু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিকরাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদুল হক মাসুদ বলেন, বালুর স্তূপ ছিল অনেক উঁচু। তিন চারজন সেই বালুর স্তূপে উঠে সেখানে থাকা পাইপ খুলতে গিয়েছিল। এ সময় বালুর স্তূপ ভেঙে তাদের ওপর পড়ে। ঘটনাস্থলে একজনের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুজন। তাদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে ভূঞাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম বলেন, বালুর স্তূপের নিচে পড়ে ভেকুর মালিক রাশেদুলের মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর আহত জুয়েল নামের একজনকে প্রথমে টাঙ্গাইল হাসপাতালে নেয়া হলেও পরে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।