অনলাইন ডেস্ক : চাঁদপুরে প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া প্রেমের জেরে বাড়িতে ডেকে নিয়ে আবু বকর (৩৫) নামে এক যুবকের বিশেষ অঙ্গ কেটে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় মতলব দক্ষিণ উপজেলার উপাদী উত্তর ইউনিয়নের দক্ষিণ ডিঙ্গাভাঙ্গ গ্রামের নইমুদ্দিন মিজি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

মিজি বাড়ি ও আশপাশের একাধিক ব্যক্তি জানায়, আবু বকরের সঙ্গে শাহজাহান মিজির স্ত্রী সারমিনের অবৈধ সম্পর্ক ছিল। তার স্বামী দীর্ঘদিন প্রবাসে থাকার পর ৪-৫ মাস আগে দেশে ফিরে আসেন। বিষয়টি তার স্বামী জানতে পেরে তার স্ত্রীকে জিজ্ঞেস করলে অস্বীকার করে। তাই তার স্ত্রী সারমিনকে দিয়ে ফোন করে কৌশলে তাদের বাড়িতে নিয়ে আসে আবু বকরকে। পরে তাকে পাশের বিলে নিয়ে গিয়ে তার হাত-পা বেঁধে পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলে হত্যার চেষ্টা করে। রক্তাক্ত আহত আবু বকরের চিৎকারে আশেপাশে লোকজন এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে প্রেরণ করলে চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এদিকে বহরী গ্রামের একাধিক ব্যক্তি এবং ওই ওয়ার্ডের মেম্বার কামাল গাজী বলেন, আবু বকরদের সঙ্গে ডিঙ্গাভাঙ্গা গ্রামের শাহজাহান মিজীদের দীর্ঘদিন যাবৎ দ্বন্দ্ব চলছে। তাই পরিকল্পিতভাবে আবু বকরকে হত্যার উদ্দেশ্য এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে তারা।

সংবাদ পেয়ে মতলব দক্ষিণ থানার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে কেটে ফেলা বিশেষ অঙ্গের অবশিষ্ট অংশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল্লাহ প্রধান বলেন, আমার ইউনিয়নে এ ধরনের ঘটনা আগে কখনো ঘটেনি। আমি দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি কামনা করছি। মতলব দক্ষিণ থানার ওসি রিপন বালা গণমাধ্যমকে বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে।