টাঙ্গাইল সংবাদদাতা : টাঙ্গাইলের সখীপুরে মাদকাসক্ত ছেলের হাতে বাবাকে খুন করার অভিযোগ উঠেছে। রবিবার রাতে উপজেলার বড়চওনা ইউনিয়নের দাড়িপাকা বিন্নরীপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। রাতেই রান্না ঘরের মেঝে থেকে নিহত মো. সামাদ মিয়ার (৫৫) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনার পর থেকেই ছেলে ওয়াহেদ আলী (২৮) পলাতক। সোমবার সকালে ওই ছেলেকে আসামি করে সখীপুর থানায় অভিযোগ দিয়েছেন নিহতের ছোট ভাই আব্দুর রশিদ মিয়া।

প্রতিবেশীরা জানায়, রবিবার সন্ধ্যায় বাবা-ছেলে এক সঙ্গেই বাড়িতে ছিল। রাত প্রায় সাড়ে দশটার দিকে সখীপুর থানার পুলিশ সামাদ মিয়ার রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করলেও ছেলে ওয়াহেদ আলীকে বাড়িতে দেখা যায় না। ধারণা করা হয় নেশার টাকার জন্য ছেলেই তার বাবাকে হত্যা করেছে। এর আগেও মাদকের টাকার জন্য বাবা-মাকে মারধর করত। সে এলাকায় একজন চিহ্নিত মাদকসেবী।

সখীপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ শাহিনুর রহমান বলেন, লাশের মাথার পিছনে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ঘটনার পর থেকে ছেলে পলাতক। এ দিকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল পাঠানো হয়েছে।