অনলাইন ডেস্ক : জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে এক নারী ইন্টার্ন চিকিৎসকের পোশাক পরিবর্তনের সময় গোপনে ভিডিও ধারণ করে ব্ল্যাকমেইল ও যৌন হয়রানি করার প্রতিবাদ ও আসামিদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছে।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) দুপুরে হাসপাতাল চত্বরে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ ও জেনারেল হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসক এবং শিক্ষার্থীরা এ মানববন্ধন করেন।

আন্দোলনরত চিকিৎসকরা জানায়, গত ৬ এপ্রিল এক ইন্টার্ন চিকিৎসক হাসপাতালের দায়িত্ব শেষে কোয়ার্টারে গিয়ে পোশাক পরিবর্তন করছিলেন। এসময় নার্সদের কোয়ার্টারের ছাদ থেকে নাইমুর রহমান, ইমরুল হাসান, জাকারিয়া হোসেন বেনজির ও আরাফাত হোসেন সে দৃশ্য মোবাইলে ভিডিও ধারণ করেন। পরে সেই ভিডিও নারী চিকিৎসকের কাছে পাঠিয়ে দেড় লাখ টাকা দাবি করে ও কুপ্রস্তাব দেয়। সেই প্রস্তাবে রাজি না হলে ভিডিও ভাইরাল করার হুমকিও দেওয়া হয়। এ ঘটনায় মামলার পর গত ১০ এপ্রিল চার আসামিকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠায় পুলিশ।

ইন্টার্ন চিকিৎসক ডা. জাকারিয়া জাকি বলেন, মামলার পর থেকে অভিযুক্তের পরিবার ও প্রভাবশালীরা মামলা তুলে নিতে হুমকি দিচ্ছে। এ অবস্থায় ভুক্তভোগীর পরিবার ভয়ে দিন পার করছে। গ্রেপ্তার আসামিদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিসহ ভুক্তভোগীর জীবনের নিরাপত্তার দাবি করছি। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।