আরিফ আহম্মেদ:

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার বোকাইনগর ইউনিয়নের বাঘবেড় গ্রামে বসার চেয়ার দখলকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশি চাচাতো ভাইয়ের লাথিতে মোফাজ্জল হোসেন (১৩) নামে এক কিশোর খুনের ঘটনা ঘটেছে। সে মৃত আলালের ছেলে ও স্থানীয় পাইবাকুড়ি উচ্চ বিদ‍্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী। 

বুধবার (১৭ এপ্রিল) বিকালে বাড়ির সামনে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

নিহত মোফাজ্জলের চাচা রফিকুল ইসলাম জানান- প্রচন্ড গরমে বিকালে বাড়ির সামনে মোফাজ্জল চেয়ারে বসে ছিল। এসময় প্রতিবেশি রবিকুল ইসলামের ছেলে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী মোবারক (১৫) এসে তাকে চেয়ার ছাড়তে বলে। এনিয়ে দুইজনের কথা কাটাকাটি হলে মোবারক তার বুকে ও নিম্নাঙ্গে লাথি মারে। এতে মোফাজ্জল অজ্ঞান হয়ে গেলে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) রাজেন্দ্র দেবনাথ জানান- হাসপাতালে আনার আগেই মোফাজ্জল মারা গেছে।

এ ঘটনায় নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসির মাঝে শোকাবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় বোকাইনগর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো: আল মুক্তাদির শাহিন বলেন, ঘটনাটি দুঃখজনক। শুনেছি চেয়ারে বসা নিয়ে এই খুনের ঘটনা ঘটেছে।   

গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন চন্দ্র রায় এই খুনের সত‍্যতা নিশ্চিত করে জানান- নিহতের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

ওসি আরও জানান, এ ঘটনায় অভিযুক্ত মোবারক হোসেনকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান শুরু হয়েছে। এলাকার পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।