টাঙ্গাইল সংবাদদাতা : টাঙ্গাইলের গোপালপুরে সাইফুল ইসলাম নামে এক পুলিশ কর্মকর্তার মাথা ফাটানোর ঘটনায় নারী-পুরুষসহ ১৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (২০ এপ্রিল) সকালে উপজেলার হাদিরা ইউনিয়নের পলশিয়া গ্রাম থেকে তাদের আটক করা হয়।

এর আগে শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরে ওই গ্রামে একজনের ধান জোর করে কেটে নেওয়া হচ্ছে ৯৯৯ নম্বরে এমন সংবাদ পেয়ে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাইফুল ইসলাম একজন পুলিশ সদস্য নিয়ে সেখানে হাজির হন। এ সময় ধান কাটা বন্ধ করা নিয়ে দুইপক্ষের চলমান সংঘর্ষে পুলিশের ওপর হামলা হয়। এতে পুলিশ কর্মকর্তা সাইফুলসহ চারজন আহত হন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হোসেন জানান, পলশিয়া পূর্বপাড়া গ্রামের কাজিম মণ্ডলের লোকজন একই গ্রামের সানু মিয়ার ডুব বিলের দুই বিঘা পাকা বোরো ধান কাটা শুরু করে। পরে সানু মিয়া জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিলে গোপালপুর থানার সাব ইন্সপেক্টর সাইফুল ইসলাম একজন কনস্টেবল নিয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হন। পুলিশ দেখে প্রতিপক্ষরা ক্ষিপ্ত হয়ে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এতে সাইফুল ইসলামের মাথা ফেটে যায়। পুলিশ সদস্য শফিকুল ইসলামসহ সানু মিয়ার দুইজন আহত হন। আহতদের গোপালপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক ডা. প্রিয়াঙ্কা জানান, পুলিশ কর্মকর্তা সাইফুল ইসলামের মাথায় বেশ কয়েকটি সেলাই দেওয়া হয়েছে।

গোপালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমদাদুল হক তৈয়ব জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। হামলার অভিযোগে ১৬ জনকে গ্রেপ্তার করে শনিবার জেলহাজতে পাঠানো হয়। বাকি আসামিদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।