রিয়াজ রহমান, জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) সংবাদদাতা : সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলায় গত কয়েক দিনের টানা বৃষ্টিপাত ও উজান থেকে আসা পাহাড়ি ঢলে নিম্নাঞ্চল বন্যায় প্লাবিত হয়ে উপজেলার প্রায় ১৩ হাজার পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। জগন্নাথপুর পৌরসভা সহ ৮টি ইউনিয়নের বিভিন্ন হাটবাজার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় পানিবন্ধী লোকজন তাদের নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী ক্রয় করতে না পেরে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

তাছাড়া নিম্নাঞ্চলের অধিকাংশ কাঁচা ও পাকা রাস্তা পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় উপজেলার হাজার হাজার মানুষ নৌকা দিয়ে চলাচল করছেন। উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের তথ্যানুযায়ী কলকলিয়া ইউনিয়নে ৩হাজার ৫শ, চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নে ৮শ, রানীগঞ্জ ইউনিয়নে ৮শ, সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নে ১হাজার ৬শ, আশারকান্দি ইউনিয়নের ৪শ ৫০, পাইলগাঁও ইউনিয়নে ৩শ ৫০ ও জগন্নাথপুর পৌরসভায় ৫হাজার পরিবার পানিবন্দি রয়েছেন। এদের মধ্যে অনেকেই বন্যায় গৃহহীন হয়ে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্রে এবং আত্মীয়-স্বজনদের বাড়ি ঘরে আশ্রয় নিয়েছেন।

বন্যায় সরকারের ত্রান সামগ্রী পর্যাপ্ত না হওয়ায় পানিবন্দি লোকজন ত্রানের জন্য অপেক্ষার প্রহর গুনছেন। বন্যায় স্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্টান (অস্থায়ী আশ্রয়) কেন্দ্র গুলোতে আশ্রয় নেয়া পরিবার গুলো কর্মহীন থাকায় দেখা দিয়েছে খাদ্য সংকট। জরুরী ভিত্তিতে বন্যা কবলিত এলাকায় ত্রান সামগ্রীর বরাদ্দের প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন জনপ্রতিনিধিরা।