স্টাফ রিপোর্টার : জমি নিয়ে বিরোধ, বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদের জের ধরে গফরগাঁওয়ের দত্তের বাজার বিরুই নদীরপাড় এলাকার বিএনপি-জামাত সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের করে বিপাকে পড়েছেন একটি হিন্দু পরিবারের সদস্যরা। আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় এবং মামলা তুলে নিতে আসামীদের হুমকির কারণে বাড়ি ঘর ছেড়ে পরিতোষ চন্দ্র সিংহের তিন ভাইয়ের পরিবার পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। ন্যায্য বিচার প্রাপ্তিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগী পরিবারটি।

মামলার বিবরণে জানা যায়, গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার দত্তের বাজার বিরুই নদীরপাড় এলাকায় মৃত মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট হারাধন সিংহের তিন ভাই কালিপদ সিংহ, পরিতোষ চন্দ্র সিংহ ও শেখর সিংহের পরিবারের সদস্যরা দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করেন। এই হিন্দু পরিবারকে উচ্ছেদ করে জমি দখলের পায়তাড়া করে আসছিল প্রতিবেশি বিএনপি নেতা আলাল উদ্দিন ও জামাত নেতা গোলাম মোস্তফার পরিবারের সদস্যরা। এর পাশাপাশি আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটুক্তি করার প্রতিবাদ করতো আওয়ামী লীগ দলীয় এই হিন্দু পরিবাটি। এসব নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। এরই জেরে গত ২৮ সেপ্টেম্বর রাত ১১টার সময় বিএনপি জামাতপন্থী আলাল উদ্দিন, গোলাম মোস্তফা, শহিদুল্লাহ, আসাদুল্লাহ, একলাস উদ্দিন, তাফিজ উদ্দিন, জয়নাল আবেদিন, নিজাম উদ্দিন, নবি হোসেন, মফিজ উদ্দিন, জামাল উদ্দিন, আওয়ালসহ ১৪/১৫ জনের একটি সন্ত্রাসী দল রামদা, লাঠিসহ দেশিয় অস্ত্র নিয়ে হিন্দু পরিবারের ওপর হামলা চালিয়ে সদস্যদের মারধোরসহ মালামাল ভাংচুর এবং লুটপাট করে নিয়ে যায়।

আশপাশের লোকজনের খবরে পুলিশ এসে রক্তাক্ত অবস্থায় গুরুতর আহত পরিতোষ চন্দ্র সিংহ, শেখর চন্দ্র সিংহ ও দীপা রানী সিংহকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। এ সময় হামলাকারী প্রতিবেশি নিজাম উদ্দিনের বাড়িতে তল্লাসী করে রক্তমাখা একটি রামদা ও একটি লাঠি উদ্ধার করে পুলিশ। হামলার ঘটনায় পরের দিন ২৯ সেপ্টেম্বর পরিতোষ চন্দ্র সিংহের স্ত্রী দীপা রানী সিংহ বাদী হয়ে পাগলা থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর থেকে এখন পযর্ন্ত কোন আসামীকে পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি।

মামলার বাদী দীপা রানী সিংহ জানান, ঘটনার দিন রাত ১১টার সময় সন্ত্রাসীরা বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়ে তার স্বামীসহ পরিবারের সদস্যদের ঘর থেকে বের করে নির্যাতন চালায়। এ সময় তাদের ভয়ে আশপাশের লোকজন আসতে সাহস পায়নি। ১০-১৫ মিনিট সময় ধরে তান্ডব চালায় এবং এলাকা ছেড়ে চলে যেতে বলে জামাত বিএনপির সন্ত্রাসীরা। এই ঘটনায় মামলা দায়ের করা হলেও অজ্ঞাত কারণে পুলিশ কোন আসামীকে গ্রেফতার করছে না। আসামীরা মামলা তুলে নিতে বিভিন্ন মাধ্যমে পরিবারের সদস্যদের হুমকি দিচ্ছে। আসামীদের ভয়ে বাড়িতে তালা লাগিয়ে বিভিন্ন স্থানে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন তারা।

গুরুতর আহত পরিতোষ চন্দ্র সিংহ জানান, এর আগেও জামাত বিএনপি সন্ত্রাসীরা নির্যাতন করে আরও দুইটি হিন্দু পরিবারকে এলাকা ছাড়া করেছে। উচ্ছেদ হওয়া অশিনী কুমার দেবনাথ ও গুরুপদ সিংহের পরিবারের জমিজমা আলাল-মোস্তফা গংরা ভোগ দখল করছে। আমাদের মতো নিরীহ পরিবারকেও উচ্ছেদ করতে হামলা চালানো হয়েছে। আসামীদের ভয়ে পালিয়ে বেড়ানোর কারণে আসন্ন দূর্গাপূজা করা তহবে না জানান ভুক্তভোগী পরিতোষ।

প্রত্যক্ষদর্শী প্রতিবেশি গৃহিনী পপি আক্তার জানান, হিন্দু পরিবারটি কট্রর আওয়ামীলীগ পন্থী। জামাত বিএনপি পন্থী আলাল-মোস্তফা গংরা প্রায়ই আওয়ামীলীগ, বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটুক্তি করতো এর প্রতিবাদ করতো পরিতোষ পরিবার। এছাড়া জমি নিয়েও ছিল দুই পরিবারের মধ্যে দ্বন্ধ। এসব কারণে হামলাকারীরা হিন্দু পরিবারের সদস্যদের উপর হামলা চালিয়ে নির্যাতন করে।

সন্ত্রাসীদের ভয়ে আমরা কেউ এদের সহায়তা এগিয়ে আসার সাহস পায়নি। নির্যাতন করে চলে যাওয়ার এসে পরিতোষ পরিবারকে উদ্ধার করা হয় এবং পুলিশকে খবর দেই। আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় এদের ভয়ে পরিবারের সদস্যরা বাড়ি ঘর ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

দত্তের বাজার ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি হাফিজ উদ্দিন জানান, আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে জামাত বিএনপি সন্ত্রাসীদের হিন্দু পরিবারের উপর হামলা এটা এলাকাবাসী মেনে নিতে পারছে না। পুলিশের ভূমিকা নিয়েও এলাকাবাসীর মধ্যে নানা গুঞ্জন রয়েছে। ন্যায় বিচার পেতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এই নেতা।

আসামী গ্রেফতার করতে না পারার বিষয়টি স্বীকার করে পাগলা থানার ওসি শাহিনুজ্জামান খান জানান, আসামীরা এলাকায় না থাকায় তাদের গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে ভুক্তভোগী পরিবার বাড়িঘরে আসলে তাদের নিরাপত্তা দেয়া হবে জানান তিনি।

এদিকে স্থানীয় সংসদ সদস্য ফাহমি গোলন্দাজ বাবেল জানান, হামলাকারী জামাত বিএনপি সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনকে বলা হয়েছে। হিন্দু পরিবারকে ন্যায় বিচার পাওয়ার ক্ষেত্রে সব ধরণের সহায়তা করবেন জানান তিনি।

media image
ছবি